Globe Securities Ltd. | Post Details
1 Nov

গুজবে আশঙ্কার কিছু নেই স্বাভাবিক গতিতেই চলবে বাজার

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পুঁজিবাজারকে স্থিতিশীল রাখতে এখন পর্যন্ত দেশে ইস্যুকৃত সবচেয়ে বড় আইসিবির বন্ড অনুমোদন করা হয়েছে। পাশাপাশি চীনা অর্থও ট্রেক হোল্ডারদের হাতে পৌছানোর পথে। যদিও নির্বাচনকে ঘিরে একটা অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে পুঁজিবাজারে। নানামুখী গুজবে কিছুটা শঙ্কিত বিনিয়োগকারীরা। তবে এটা নিয়ে টেনশনের কিছু নেই। কেননা আগামী কয়েক বছরের মধ্যে দেশের পুঁজিবাজারের আকার অনেক বেড়ে যাবে। কারণ যেভাবেই হোক সরকার একটা গঠন হবেই। আর সরকার যেসব বড় মেগা প্রজেক্ট হাতে রয়েছে। সেসব প্রকল্পের জন্য অনেক টাকা প্রয়োজন। সরকার পুঁজিবাজার থেকে তা সংগ্রহ করতে পারে। তাছাড়া বাজারে বিদেশী বিনিয়োগও বাড়ছে। কাজেই বাজার তার স্বাবাভিক গতিতে চলবে বলেও মনে করছেন তারা।

তারা আরও বলছেন, ১৯৯৬ সালের পুঁজিবাজারের বিপর্যয় এবং পরবর্তীতে ২০১০ সালের ধস দুটো বড় ঘটনা। এসব বড় কেলেঙ্কারীর ঘটনার প্রধান কারণ ছিল বিনিয়োগকারীদের সচেতনতা ও প্রকৃত শিক্ষার অভাব। এর পাশাপাশি দক্ষ মানবসম্পদের ঘাটতিও এতে ভূমিকা রেখেছে। পরবর্তীতে বাজার স্বাভাবিক হতে অনেক সময় লেগে গেছে। কিন্তু তারপরও এখনও আমাদের বাজারে জেড ক্যাটেগরির দুর্বল বা মন্দ অস্বাভাবিক দর বৃদ্ধি দেখা যায়। এত কিছুর পরেও কারা এত উচ্চমূল্যে এসব দুর্বল শেয়ার কিনছে, সেটিও সন্দেহজনক। তবে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা যদি না বুঝে লোভনীয় দর বৃদ্ধিতে আকৃষ্ট হয়ে এসব শেয়ারে বিনিয়োগ করে শেষে বড় লোকসানে পড়ে, তাহলে পুঁজি হারানোর দায় নিজেকেই নিতে হবে।

Comments